Wednesday, July 28, 2021

এবার বুঝতে শুরু করেছে ইউরোপ পরিবেশ রক্ষা করা কতটা দামী

ভয়ংকর বন্যায় বিধ্বস্ত জার্মানি। ম ব্লা পর্বত মালা গলে বারোশো নতুন জলাশয় সৃষ্টি হয়ে গেছে।উত্তর মেরুতে ১২০০কিলোমিটার লম্বা বরফে ফাটলের দাগ ধরা পড়েছে স্যাটেলাইট ক্যামেরায়।বিশেষজ্ঞের সতর্কতা কতখানি গুরুত্বপূর্ন, জানতে পারছে এবার ইউরোপের মানুষ।জার্মানির বিদায়ী চ্যান্সেলর আঙ্গেলা ম্যার্কেল বলেছেন, যে বীভৎসতা জার্মানি দেখলো এই বন্যায় তা প্রকাশ করার মত কোন ভাষা জার্মান ডিকশনারিতে নেই। আগামী সেপ্টেম্বর জার্মানিতে নির্বাচনে কিছু হতে চলেছে পরিবেশ বিপর্যয়। জার্মানির এই বন্যার পিছনে রয়েছে যে বিপর্যয় তা প্রতিহত করতে গেলে অবিলম্বে বাতাসে কার্বন নির্গমন কমিয়ে আনতে হবে চুক্তি অনুযায়ী নির্ধারিত স্তরে। নইলে গোটা ইউরোপের বিভিন্ন দেশে এভাবে আচমকা বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত হবে বিপুল ধন সম্পদ এবং নর-নারী। জার্মানির বর্তমান বন্যায় ক্ষতির পরিমাণ অভাবনীয়। জাতীয় বিপর্যয় হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে। এখনো পশ্চিম জার্মানির বিপুল অঞ্চল জলের তলায়। সেখানে উদ্ধারকাজ চলছে। গোটা দেশজুড়ে এখন পরিবেশ রক্ষায় মানুষের মধ্যে থেকে দাবি উঠছে। চাপ বাড়ছে সরকারের উপর। জার্মান রাজনীতি ও অর্থনীতিতে সুস্পষ্টভাবে এবার পরিবেশবান্ধব নীতি নিতে হবে এমন দাবি উঠছে মানুষের মধ্য থেকে।

- Advertisement -

জার্মানিকে দেখে কি বাকি বিশ্ব কিছু শিক্ষা গ্রহণ করছে? ইতিমধ্যে পরিবেশ পরিবর্তনের ফলে আরব সাগর ও বঙ্গোপসাগরে ঘনঘন নিম্নচাপ ও হারিকেন সৃষ্টি হওয়ার মতো অবস্থা তৈরি হয়েছে! গোটা বিশ্ব জুড়েই কিন্তু এর প্রতিক্রিয়া অনুভূত হচ্ছে। করোনা মহামারীতে বিপন্ন পৃথিবীতে পরিবেশ বিশেষজ্ঞদের সতর্কবাণী মনে রাখা দরকার। তাঁরা বলেছেন, এই মহামারীতে যত মানুষ মারা গেছে,তার চাইতেও বেশি মৃত্যু ও ক্ষয়ক্ষতি হতে পারে পরিবেশ বিপর্যয়ে। ২০৩০ সালের মধ্যে যদি বিশ্ব উষ্ণায়ন নিয়ন্ত্রণ করতে না পারা যায়, বাতাসে কার্বন লেভেল কমিয়ে আনা না যায়, তাহলে মানুষের সামনে ভয়ঙ্কর বিপদ অপেক্ষা করছে।

- Advertisement -
- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisement -

Popular Articles

error: Content is protected !!