Wednesday, July 28, 2021

শিরদাঁড়া বিক্রি করতে রাজি নয় ইস্টবেঙ্গল কর্তারা, ঐতিহাসিক সিদ্ধান্তে ক্লাব ফেরালো শ্রী সিমেন্টকে

ক্লাব খেলবে না তবু ভালো কিন্তু ক্লাব নিজের সত্তাকে বিক্রি করবে না, ঠিক এমনই সিদ্ধান্ত নিল ইস্ট বেঙ্গল কর্তারা।কোনমতেই শ্রী সিমেন্ট এর পাঠানো টার্মশিটে সই করবে না ইস্টবেঙ্গল । কর্তারা আজ এই মর্মে কড়া সিদ্ধান্ত নিয়ে নিলেন। সকলেই ভেবেছিল পরিস্থিতির চাপে ইস্টবেঙ্গল কর্তারা রণে ক্ষান্ত দেবেন। কিন্তু আজ শুক্রবার ক্লাবে কার্যনির্বাহী কমিটির সভার পর সদস্যরা সিদ্ধান্ত নিয়েই ফেললেন সই করবেন না। প্রেস রিলিজ দিয়ে সেই কথা জানিয়ে দেওয়া হলো ক্লাবের পক্ষ থেকে। এদিকে পূর্ব শর্ত অনুযায়ী শ্রী সিমেন্ট এর কাছে রয়েছে খেলার স্পোর্টিং রাইটস। তাদের পাঠানো শর্তে না রাজি হওয়ার ফলে চলতি বছরে বিভিন্ন টুর্নামেন্টে ইস্টবেঙ্গলের খেলা অনিশ্চিত হয়ে পড়বে। ইতিমধ্যেই কলকাতা ফুটবল লিগের খেলা নিয়ে জটিলতা তৈরি হয়েছে। ইস্টবেঙ্গল না খেললে হয়তো তাদের দ্বিতীয় ডিভিশনে নামিয়ে দেওয়া হবে এমন আশঙ্কাও আছে। তবুও শিরদাঁড়া বিক্রি করতে রাজি নয় ইস্টবেঙ্গল কর্তারা।

ইস্টবেঙ্গলের এই অবস্থান ঐতিহাসিক। কর্পোরেট দুনিয়ার কাঁচা টাকা যখন ফুটবল সংস্কৃতি তথা সমস্ত ক্রীড়াজগৎ কে বাণিজ্যের লেজুড় করে তুলেছে, সেই সময় খেলার স্বার্থে কর্পোরেট লগ্নি নিয়ে ক্লাবের ভূমিকা উজ্জ্বল করতে মোহনবাগান ইস্টবেঙ্গল এর মতন শতবর্ষ প্রাচীন ফুটবল ক্লাব কর্পোরেট লোগো ব্যবহার করার সিদ্ধান্ত নেয়। কিন্তু চিরকাল কর্পোরেটের যা স্বভাব এ ক্ষেত্রেও তার ব্যতিক্রম ঘটেনি। কর্পোরেট এখন চাইছে গুটার ক্লাব এবং তার সংস্কৃতি সমর্থক সকলকেই দখল করে তার বাণিজ্যের অধিকার প্রতিষ্ঠিত করে মূল ক্লাবের সমস্ত কিছুকে তার দাসানুদাস এ পরিণত করা। শ্রী সিমেন্টের পাঠানোর টার্মশিট সেই কথাই বলে। ইস্টবেঙ্গল ক্লাব নিজেকে বেচে দেওয়ার এই শর্তে রাজি নয়। কর্পোরেট আগ্রাসনের বিরুদ্ধে তাদের এই ঘুরে দাঁড়ানো বাংলার চিরাচরিত প্রতিবাদী বৈপ্লবিক মানসিকতার পরিচয় তুলে ধরে।

- Advertisement -

ইস্টবেঙ্গল ক্লাবের সচিব কল্যাণ মজুমদার আজ জানিয়েছেন,” সভাপতির নেতৃত্বে আমরা সকল এক্সিকিউটিভ কমিটির সদস্যরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি, যে এগ্রিমেন্টে ক্লাবকে চিরতরে একতরফা করে দেওয়ার শর্তাবলী রয়েছে, যে এগ্রিমেন্টে সদস্যদের অসম্মান এবং তাঁদের অধিকার খর্ব করে দেওয়ার শর্তাবলী রয়েছে, যে এগ্রিমেন্টে ক্লাবের মৌলিক অধিকার নেই, যে এগ্রিমেন্টে ক্লাবের মাঠ, ক্লাবের লোগো, ক্লাবের নাম, টেন্ট সহ সমস্ত কিছু চিরতরে নিয়ে নেওয়ার এবং ক্লাবকে সেগুলো ব্যবহার করতে না দেওয়ার শর্তাবলী রয়েছে, যে এগ্রিমেন্টে ক্লাবের কোটি কোটি সদস্য সমর্থকের চিরকালীন আত্মভিমানে আঘাত এবং যে এগ্রিমেন্টে সমর্থকদের বলা হয় ‘ট্রেসপাসার্স উইল বি প্রসিকিউটেড’ সেই এগ্রিমেন্ট আমরা সই করব না।”
ক্লাবের প্রেস রিলিজে সমর্থকদের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বানও জানানো হয়েছে। এছাড়া ক্লাবের সমস্ত সদস্য সমর্থক এবং প্রাক্তন ফুটবলারদের সুচিন্তিত মতামত জানাতে বলা হয়েছে।

- Advertisement -
- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisement -

Popular Articles

error: Content is protected !!