Wednesday, July 28, 2021

পন্থ খেলবে, দয়ানন্দ, ঋদ্ধিমান, অভিমন্যু এবং ভরত নিভৃতাবাসে, আতঙ্কের কোনো কারণ নেই : সৌরভ

তবে আতঙ্কের কোনো কারণ নেই । পন্থকে নিয়েও চিন্তিত নন বিসিসিআই চেয়ারম্যান সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। পন্থদের ঘুরে বেড়ানো নিয়েও তিনি কোনও দোষ দেখছেন না। তাঁর আশ্বাস, খেলা শুরু হতে এখনো অনেক দেরি। আশা করা যায় এর মধ্যে পন্থ সুস্থ হয়ে উঠবেন। এবং ইন্ডিয়া টিমের সঙ্গেই পন্থ খেলবে । বৃহস্পতিবার ওমান যাওয়ার আগে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় একথা জানান সাংবাদিকদের।

- Advertisement -

ইংল্যান্ডে করোনা আক্রান্ত ঋষভ পন্থ। এই খবর প্রকাশ্যে আসার পর দলের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে গেছে। রীতিমতন বাকিরা সব হোটেলে নিজেদের বন্দি করে রেখেছেন। একসঙ্গে ঘুরতে গিয়ে বাইরে কেনাকাটা করার ফাঁকে পন্থ আক্রান্ত হয়েছে করোনায়। এদিকে টিম ইন্ডিয়ার মধ্যে একের পর এক খেলোয়াড় আক্রান্ত হচ্ছে । ঋদ্ধিমান সাহার পর ভারতীয় দলে থাকা বাংলার আরও এক ক্রিকেটার নিভৃতবাসে। অভিমন্যু ঈশ্বরণকেও নিভৃতবাসে পাঠানো হয়েছে বলে জানাল ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড। লন্ডনের হোটেলেই ১০ দিনের জন্য আলাদা আলাদা ঘরে নিভৃতবাসে রাখা হবে দয়ানন্দ, ঋদ্ধিমান, অভিমন্যু এবং ভরতকে।বুধবার দয়ানন্দের করোনা পরীক্ষার ফল পজিটিভ এসেছে বলে জানিয়েছে বোর্ড।

বৃহস্পতিবার সকালে জানা গিয়েছে উইকেটরক্ষক ঋষভ পন্থ এবং থ্রো ডাউন বিশেষজ্ঞ দয়ানন্দ গরানী করোনা আক্রান্ত। এক আত্মীয়ের বাড়িতে নিভৃতবাসে রয়েছেন পন্থ। দলের থেকে আলাদা করে রাখা হয়েছে দয়ানন্দকে। বিসিসিআই সচিব জয় শাহ বলেন, “৮ জুলাই করোনা আক্রান্ত হয় পন্থ। তখন থেকেই নিভৃতবাসে রয়েছে ও। দলের চিকিৎসকদের তত্ত্বাবধানে রয়েছে পন্থ। করোনা পরীক্ষার ফল নেগেটিভ এলে ডারহামেও যাবে পন্থ।”
দয়ানন্দের সংস্পর্শে আসার কারণে বোলিং প্রশিক্ষক ভরত অরুণ নিভৃতবাসে। তাঁর সংস্পর্শেই এসেছিলেন ঋদ্ধিমান এবং অভিমন্যু। তবে এঁদের তিন জনের করোনা পরীক্ষার ফল নেগেটিভ এসেছে।

ভারতীয় দলে যাঁদের করোনার দ্বিতীয় ডোজ বাকি ছিল, জুলাই মাসের শুরুতে দিয়ে দেওয়া হয়েছে। ২০ জুলাই ডারহামে প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে ভারত। ৪ অগস্ট ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে নামার আগে করোনা সমস্যায় জর্জরিত বিরাটবাহিনী।

এত সত্বেও বোর্ড প্রধান সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের আশা,ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ভারতীয় দল ভাল খেলবে। “নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে একটা ম্যাচে হেরেছে বলে দল খারাপ খেলবে ভাবার কোনও কারণ নেই। এবারের ইংল্যান্ড সফর অনেক লম্বা, পাঁচ ম্যাচের সিরিজ। এই টিমের ফিটনেসের ওপর অনেক কিছু নির্ভর করছে। অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধেও প্রথম ম্যাচে হেরেও দল সিরিজ জিতে এসেছে। ভারতের যথেষ্ট ঘুরে দাঁড়াবার শক্তি এবং ক্ষমতা আছে। খেলা শুরু হওয়ার আগে গোটা টিমটাকে পুরোমাত্রায় কন্ডিশনিং করে তোলাটাই আসল চ্যালেঞ্জ।

- Advertisement -
- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisement -

Popular Articles

error: Content is protected !!