Wednesday, July 28, 2021

উয়েফা কাপে হারের পর স্টেডিয়ামেই ইতালি সমর্থকদের মার, ইংল্যান্ডে বর্ণ বিদ্বেষী হিংসা, বিবৃতি ,তদন্তের নির্দেশ

উয়েফা কাপে হারের পর ইংল্যান্ড সমর্থকদের অসভ্যতা, বর্বরতা এবং বর্ণ বিদ্বেষী হিংসা প্রকট হয়ে পড়ল।এমনিতেই হারের পর তাদের উচ্ছৃঙ্খলতা ভয়াবহ রূপ নেয়। এটা বিশ্ববাসী জানে।এদিন উয়েফা কাপে ফাইনালে হারের পর বেনজির আক্রমণ চালায় ইতালি সমর্থকদের উপর। বোতল ছুঁড়ে, বাস জ্বালিয়ে লন্ডনের রাস্তায় তুলকালাম করে ইংরেজ সমর্থকরা।,রাস্তা ঘাটে ভাঙচুর থেকে পাবলিক প্লেসগুলোতে অশান্তি ছড়ানোর মতো হিংসাত্মক ঘটনার আশ্রয় নেয়। এভাবে জাতীয় দলের হারের হতাশা থেকে ভয়ঙ্কর হিংসা ছড়াতে থাকে।এরপর এই হারের বিশ্লেষণে তাঁরা নিজেরাই চরম অমানবিক অভিযোগ আনা শুরু করে । দলের কৃষ্ণাঙ্গ খেলোয়াড়দের বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা শুরু হয় যে তাদের জন্যই দলের এই হার। টাইব্রেকার শ্যুট আউটে গোল মিস করায় সোশ্যাল মিডিয়ায় ইংল্যান্ডের কৃষ্ণাঙ্গ ফুটবলাররা বর্ণ বিদ্বেষী অশ্রাব্য গালিগালাজের শিকার হয়, শেষে ইংল্যান্ডের ফুটবল ফেডারেশন বিবৃতি দিতে বাধ্য হয়।

উল্লেখ্য উয়েফা ফাইনালে ইতালির বিরুদ্ধে পরপর তিনটি পেনাল্টি মিস করায় ম্যাচ হেরে যেতে বাধ্য হয়।মার্কাস রাশফোর্ড এবং জ্যাডন স্যানচো মিস করার পর যাবতীয় নজর ছিল বুকাও সাকার দিকে। তিনিও মিস করেন। টানা তিনটি পেনাল্টি মিস করায় ইতালির ইউরো জয় নিশ্চিত হয়ে যায়। এফএ-র তরফে তারপরেই বিবৃতি দিয়ে জানানো হয়, যেভাবে তিন তারকাকে নিশানা করা হচ্ছে, তা কার্যত বিস্ময়কর! এফএ-র বিবৃতিতে বলা হয়েছে, “ফুটবলারদের পাশে দাঁড়িয়ে দোষীদের আমরা কঠিনতম শাস্তির দিতে বদ্ধপরিকর। খেলা থেকে বৈষম্য দূর করতে সর্বতভাবে আমরা চেষ্টা করব। সরকারের কাছে এই বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করে জানাতে চাই, দোষীদের যেন দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেওয়ার ব্যবস্থা করা হয়।”

- Advertisement -
- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisement -

Popular Articles

error: Content is protected !!